তোমার ভালোবাসার রূপকথা • পর্ব-২ | Jemon Blog
ঢাকাসোমবার - ২৯ নভেম্বর ২০২১
  1. অনলাইন জব
  2. গল্প জানুন
  3. টেক আপডেট
  4. লাভ স্টোরি
  5. সাকসেস লাইফ
  6. সোস্যাল আপডেট
  7. হেলথ টিপস

তোমার ভালোবাসার রূপকথা • পর্ব-২

যেমন ব্লগ ডেক্স
নভেম্বর ২৯, ২০২১ ৫:৩৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ad

তোমার ভালো! আগামীকাল সন্ধ্যা ৭:৩০ মিনিটে আমার ফ্লাইট। ইংল্যান্ড হয়তো এটাই আমার জীবনের শেষ দিন হতে পারে অথবা এখানে আর জীবনেও আশা হতে পারে আমার ভার্সিটির ছাড়া বন্ধুবান্ধব সবাইকে আজকে বলে আসলাম আমি দেশ ছেড়ে আমার নিজের গন্তব্যে ফিরে যাচ্ছি সবার সাথে আড্ডা দিলাম বহুৎ কথা হলো সবাই আমরা ফেসবুকে কানেক্ট আছি ওখানে সবার সাথে কথা হবে এই বলে আমি তাদের থেকে বিদায় নিলাম নিজের সবকিছু গুছাতে লাগলেন আমি কালকে আমি দেশে আসবো সেজন্য। তোমার ভালো

আজকে সন্ধ্যায় আমার ফ্লাইট আমি সবকিছু নিয়ে ইংল্যান্ডের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর রয়েছে সেখানে চলে গেলাম গাড়ি করে ওখানে গিয়ে অপেক্ষা করলাম চেকিং সবকিছু কমপ্লিট হওয়ার পরে আমার প্লেনের মধ্যে উঠলাম এরপর টানা কয়েক ঘণ্টা পরে আমার গন্তব্যে পৌছালাম অর্থাৎ ঢাকা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাতে পেরেছি। এখানে বহুৎ ফ্যাসালিটি যেমন বডি চেক করা হবে চেক করা সব কিছু মিলিয়ে প্রায় ২-৩ ঘন্টা পার হয়ে যাচ্ছে এর পরে বাইরের দিকে আসতে লাগলাম।

যেহেতু দেশ থেকে গিয়েছে মাত্র ৮ মাস হয়েছে তাই কাউকে চিনতে আমার কষ্ট হয়নি আমি সবাইকে খুব সহজে চিনতে পারছি আর প্রতিদিন দুইবার একবার আমার ফ্যামিলির সবার সাথে ভিডিও কলে কথা হয় তাই কাউকে চিনতে আমার কোন ভাবে কষ্ট হচ্ছে না। তোমার ভালো! টেকনোলজির এই যুগে ভিডিও কল অডিও কল অনলাইনে কথা বলা খুবই সহজ এবং খুবই স্বল্প খরচে ওইগুলো করা যায় তাই এগুলো করতে কোন সমস্যা হচ্ছে না।

আরো পড়ুনঃ  তোমার ভালোবাসার রূপকথা • পর্ব-৪

আমি আন্তর্জাতিক শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে বের হব এমন সময় খেয়াল করলাম আমার পরিবারের সবাই ফুল নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে আমাকে সম্বর্ধনা করার জন্য আমি বুঝতে পারলাম সবাই প্রস্তুত আমি ভিতর থেকে একটু ভাব নিয়ে বের হলাম অবশ্য আমার হাতে বেশ কয়েকটা ব্যাগ রয়েছে কারণ সবার জন্য টুকটাক হাবিজাবি নিয়ে এসেছি ওখান থেকে। তোমার ভালো! বিমানবন্দর থেকে বের হতেই আমার পরিবারের সবাই ফুল দিয়ে সংবর্ধনা করল বুকে টেনে নিল অভিনন্দন জানাল।

ad

যদিও আমি এমনটা ডিজার্ভ করে নিজের এখান থেকে যারা বলে তারা আমাকে অভিনন্দন জানাবে। আমি খেয়াল করলাম আব্বুর অফিসের বেশ কয়েকজন সহকারি ছিল এখানে আমার ফ্যামিলির সবাই ছিল যেমন আব্বু, আম্মু, ছোট বোন, চাচ্চু সহ তার ফ্যামিলির সবাই ছিল এখানে ভালই রাখছে ভালো সময় কাটলো। অতঃপর তারা যে গাড়ি নিয়ে আসিসে সেই গাড়িতে করে আমরা গন্তব্যের উদ্দেশে রওনা দিলাম মন্তব্যে অল্প সময়ের মধ্যে পৌঁছে গেলাম যেহেতু রাস্তায় কোন জ্যাম ছিল না অনেক রাতে খুব সহজেই চলে আসতে পেরেছি। তোমার ভালো!

তোমার ভালোবাসার রূপকথা • পর্ব-৩

বাসায় এসে বিশ্রাম করলাম গোসল করে খাওয়া দাওয়া শেষ করে ঘুমিয়ে গেলাম। তোমার ভালো! পরের দিন সকাল ৯:০০ টার দিকে ঘুম ভেঙে গেল ঘুম থেকে উঠে ফ্রেশ হয়ে নাস্তা করে বাইরে বের হব তাই আমার ছোট বোন রুপা কে বললাম চল বাইরে থেকে ঘুরে আসি ছোট বোন বলল আমি যাবো কিসের জন্য তুই যা ঘুরে আয় আমি বললাম আমি কতদুর চিনি যে ঘুরে আসবো তুই চল আমার সাথে সমস্যা তো নেই।

আরো পড়ুনঃ  তোমার ভালোবাসার রূপকথা • পর্ব-৮

পরে ছোট বোনকে নিয়ে বাইরে বের হলাম আজকে সারাদিন ঘুরব সেই লক্ষ্যে প্রথমে আব্বুর অফিসে গেলাম সেখানে প্রায় দুই ঘণ্টার মত টাইম দিলাম সবার সাথে দেখা হলো সাক্ষাৎ কথাবার্তা সম্পূর্ণ করে আব্বুর অফিসে ভিজিট করে অন্য জায়গায় যাওয়ার প্ল্যান করলাম। তোমার ভালো! রুপা কে জিগ্যেস করলাম রুপাহার এখন কোথায় যাওয়া যায় রুপা বলল তুই কোথায় যেতে চাস আমি কি জানি তুই যেখানে যাবে আমিও তোর সাথে আছি আমি বললাম আচ্ছা চল তোর ভার্সিটি থেকে ঘুরে আসি এরপর বলল ভার্সিটিতে যাবি চল যাই।

রুপাকে নিয়ে ভার্সিটিতে চলে গেলাম এবং রুপা যে ভার্সিটিতে পড়ে সেখানে চলে যাওয়ার পরে রুপার যে শিক্ষক মহাদয় তারা আমাকে চিনতে পেরেছে কারণ একজন কমিটির লোক আমাকে সহজেই চিনতে পেরেছেন। তোমার ভালো! রুপা সকল শিক্ষক মহোদয় খানের সাথে পরিচয় করিয়ে দিলো তাদের সাথে বেশ খানিকটা সময় কথাবার্তা বললাম কথাবার্তা বলার পরে মল থেকে বিদায় দিও বন্ধু বান্ধবদের সাথে পরিচয় করিয়ে দিল সবার সাথে লম্বা সময় আড্ডা দিলাম খাওয়া-দাওয়া শেষ করলাম।

আরো পড়ুনঃ  তোমার ভালোবাসার রূপকথা • পর্ব-৭

কিন্তু এখানে একটা কথা রয়ে গেছে সব বন্ধুদের মাঝে উপায় বেস্ট ফ্রেন্ড আছে সেটা কোন মানুষ ছিল না সেটা ছিল একটা পরী বিষয়টা আমি লক্ষ্য করলো তার দিকে প্রচুর নজরদারি করেছে এবং অনেক সময় তাকিয়ে থেকেছি কিন্তু বিষয়টা আমি ধরা দেয়নি এতগুলো মানুষের মধ্যে বিষয়টা জানাজানি হলে সবাই হাসাহাসি কিংবা আমাকে নিয়ে ট্রল করতে পারে সেই অপেক্ষায় বিষয়টা আমি মোটেও এখানে ধরা দেয়নি সবার সাথে পরিচয় হলো মেয়েটার সাথে আমার। তোমার ভালো!

এই গল্পের পরবর্তী পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন।