লেবু খাওয়ার উপকারিতা | Jemon Blog
ঢাকাবৃহস্পতিবার - ৪ নভেম্বর ২০২১
  1. অনলাইন জব
  2. গল্প জানুন
  3. টেক আপডেট
  4. লাভ স্টোরি
  5. সাকসেস লাইফ
  6. সোস্যাল আপডেট
  7. হেলথ টিপস

লেবু খাওয়ার উপকারিতা

যেমন ব্লগ ডেক্স
নভেম্বর ৪, ২০২১ ৩:০৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ad

লেবু আমাদের সকলের পরিচিত। লেবু একটি টক জাতীয় উপাদান। এই প্রচন্ড গরমে যখন তীব্র দাব দাহে ক্লান্ত লেবু তখন এক গ্লাস লেবুর শরবত খেলে শরীর জড়িয়ে যায়। শরীরের সকল ক্লান্তি দূর হয়। লেবুর শরবত শরীর ঠান্ডা করে ও শরীর এর পানি শূন্যতা পূর্ণ করে থাকে। লেবু খাওয়ার উপকারিতা আছে অনেক।

আমাদের শরীরের পানি শূন্যতা পূর্ণ করার জন্য বেশি বেশি লেবু খাওয়ার পরামর্শ ডাক্তার রা দিয়ে থাকেন। লেবু তে থাকে অনেক পরিমাণ ভিটামিন। লেবু প্রাচীন কাল থেকেই ব্যবহার করা হচ্ছে। এশিয়া মহাদেশ থেকে সর্ব প্রথম এর উৎপত্তি হয়। গরমের সময় অতিথি আপ্যায়ন এর ক্ষেত্রে লেবুর সরবত দেওয়া যায়। লেবু সালাদ হিসেবে খাওয়া যায়। আবার ভাতের সাথে ও লেবু খাওয়া যায়।

১. মেদ বা ভুড়ি কমানোর ক্ষেত্রে সাহায্যে করে :

পেটের মেদ বা ভুড়ি একটি অসস্থিকর জিনিস। এটি আমাদের শরীরের সৌন্দর্য নষ্ট করে এবং এর পাশাপাশি আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ও ক্ষতিকর। অতিরিক্ত মেদে আমাদের দেহে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা দেখা দেয় যেমন :

ডায়াবেটিস , কুমড়া ও হাটুর যন্ত্রণা , প্রেশারের মতো ইত্যাদি সমস্যা সৃষ্টি করে। এছাড়া শরীরের ক্লান্তি , অনিদ্রা ও শ্বাসকষ্টের মতো অনেক শারীরিক সমস্যা তে ও মদ বা ভুড়ি প্রত্যক্ষ ভাবে জড়িত। অতিরিক্ত পরিমাণে যদি প্রতিদিন লাল মাংস খাওয়া হয় তাহলে পেটের মেদ বৃদ্ধি পায়।

ad
আরো পড়ুনঃ  খাবার খাওয়ার উপকারিতা

এক গবেষণায় দেখা গেছে যে বার বার একই তেল ব্যবহার করে খাওয়া হলে বা কোনো খাবার তৈরি করা হলে এবং ঐ খাবার খেলে পেটের চর্বি বেড়ে যায়। কারণ একই তেল বার বার ব্যবহার করলে এতে ট্রান্সফেট তৈরি হয় এবং এটি আমাদের শরীরের চর্বি বা মেদ বৃদ্ধি করে। পেটে অতিরিক্ত মেদ জমার আগে তা নিয়ন্ত্রণ করা উচিত।

অতি উচ্চ চর্বি যুক্ত বা স্নেহ পদার্থ যুক্ত খাবার খেলেই যে মেদ বা ভুড়ি দেখা যাবে সে ধারণা ভুল , বেশি ক্যালরি যুক্ত খাবার খেলে ও মেদ হয়ে থাকে। লেবু এই সকল সমস্যা দূর করে। লেবু আমাদের শরীরে প্রবেশ করে এবং শরীরের মেদ কমানোর ক্ষেত্রে সাহায্য করে। এক গ্লাস কুসুম গরম পানির সাথে লেবুর রস মিশিয়ে নিলে এবং প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে খালি পেটে ও রাতে খাওয়ার আগে খেলে মেদ বা ভুড়ি কমে যাবে কিছু দিন এর মধ্যে।

২. গ্যাসটিক এর সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে :

বর্তমান সময়ে লক্ষ করলে দেখা যাবে প্রায় সকলেরই গ্যাস টিকে এর সমস্যা রয়েছে। এখন গ্যাস টিকের সমস্যা মানুষের কাছে বড় আকারের সমস্যার চিত্র ধারণ করছে। বাইরের বিভিন্ন ধরনের খাবার খাওয়ার জন্য এমন হয়ে থাকে। আমাদের এইসব সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে লেবু সাহায্য করে। লেবু খেলে গ্যাস টিকের কোনো সমস্যা হয় না।

আরো পড়ুনঃ  তোমার কমিউনিকেশন কিভাবে ইম্প্রুভ করতে পারো?

৩. চুল পরা রোধ করতে সাহায্য করে :

বর্তমানে লক্ষ করলে চুল পড়া সমস্যা প্রায় সকলেরই দেখা যায়। কখনো কখনো অতিরিক্ত টেনশনে চুল পড়ে আবার কখনো কখনো ৭ থেকে ৮ ঘন্টা দৈনিক না ঘুমালে চুল পড়ে। আবার কখনো দেখা যায় খাবার খেতে অনিহা পুষ্টি কর খাবার না খাওয়া ইত্যাদি কারণে ও চুল পরে থাকে। আমাদের রূপ সৌন্দর্যে চুল খুবই গুরুত্বপূর্ন একটি অংশ। আমাদের সাভাবিক সৌন্দর্য কে আরও কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিতে সক্ষম হয় চুল। কিন্তু নানা বিধ কারণে চুল প্রতিনিয়ত ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এর জন্য লেবু চিপে একটা বাটিতে ভালো করে রস করে নিতে হবে এবং মাথায় কিছু সময় রেখে দিতে হবে শুকিয়ে গেলে ভালো করে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে।

৪. প্রাচীন ভারতের মহিলারা কাপড় এর দাগ তুলতে লেবু ব্যবহার করতো।

৫. নখ পরিস্কার রাখতে লেবু ব্যবহার করা হয়।

৬. দাদ ও চুলকানির জন্য লেবু ব্যবহার করা হয়।

৭. পিম্পল এর জন্য লেবু ব্যবহার করা হয়। একটি লেবুর রস ভালো করে মুখে লাগিয়ে কিছু সময় অপেক্ষা করে শুকিয়ে গেলে মুখ ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে।

আরো পড়ুনঃ  আমড়া ও আমলকি খাওয়ার উপকারিতা

৮. রক্তচাপ কমাতে লেবু খাওয়া অনেক উপকার করে।